বাংলানির্মিতিভাবসম্প্রসারণ

ভাবসম্প্রসারণঃ  জন্ম হোক যথা তথা, কর্ম হোক ভালো

 জন্ম হোক যথা তথা, কর্ম হোক ভালো

আজকের পোস্টে তোমাকে স্বাগতম। আজকের এই পোস্টে আমরা একটি ভাবসম্প্রসারণ দেখব –  জন্ম হোক যথা তথা, কর্ম হোক ভালো। এই ভাবসম্প্রসারণটি অনেক গুরুত্বপূর্ণ একটি ভাবসম্প্রসারণ। এটি অনেকবার পরীক্ষায় কমন পড়ে।

তুমি যেই শ্রেণিতেই পড়োনা কেন – এই ভাবসম্প্রসারণটি যদি তুমি মুখস্ত রাখো তাহলে তোমার পরীক্ষায় কমন পড়ার চান্স অনেক বেশি। আর এইজন্যই আজকে আমরা একটি খুবই সহজ এবং মুখস্ত করার মতো ভাবসম্প্রসারণ নিয়ে এসেছি।

তাহলে চলো, শুরু করা যাক।

 জন্ম হোক যথা তথা, কর্ম হোক ভালো

মুলভাব : জন্মগত বংশ গৌরবের চেয়ে কর্মই মানবজীবনের শ্রেষ্ঠত্বের প্রকৃত পরিচয় বহন করে।

সম্প্রসারিত ভাব : জন্মের ওপর মানুষের কোনো হাত নেই কিন্তু কর্মের ওপর রয়েছে তার পরিপূর্ণ অধিকার । মানুষের প্রকৃত পরিচয় তার বংশ-গৌরবে নয়, কর্মগুণই তার প্রকৃত পরিচয়। বংশ-মর্যাদা মানুষকে কখনো বড় করে না, কর্মই মানুষকে বড় করে। উঁচু বংশে জন্মগ্রহণ করে কেউ যদি অপকর্মে লিপ্ত হয়, তবে সকলেই তাকে ঘৃণার চোখে দেখে। বংশ-মর্যাদা তাকে সমাজের নিন্দাবাদ থেকে কখনোই রক্ষা করতে পারে না। পক্ষান্তরে নীচু বংশে জন্মগ্রহণ করেও মানুষ তার সততা, কর্তব্যনিষ্ঠা ও চরিত্রগুণে সকলের প্রশংসা অর্জন করতে পারে। ইতিহাসের পাতায় এর অসংখ্য প্রমাণ মুদ্রিত আছে। শেক্সপীয়র সাধারণ ঘরে জন্মগ্রহণ করেও সাধনা ও প্রতিভাবলে বিশ্বনন্দিত সাহিত্যিকের মর্যাদায় অধিষ্ঠিত। বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুল ইসলাম দরিদ্র পরিবারে জন্মগ্রহণ করেও বাংলা সাহিত্যে অসামান্য কৃতিত্বের জন্য অমর হয়ে আছেন। মার্কিন প্রেসিডেন্ট আব্রাহাম লিঙ্কনও ছিলেন গরিবের সন্তান। অধ্যবসায়, সাধনা এবং কর্মগুণে তিনি ইতিহাস খ্যাত হয়ে আছেন। বিদায় হজ্জের ভাষণে মহানবি হজরত মুহাম্মদ (স.) সমবেত জনতার উদ্দেশ্যে বলেছিলেন, “কোনো খোঁড়া ক্রীতদাসও যদি নিজ যোগ্যতাবলে জনগণের সমর্থন লাভ করে আমীরের পদ লাভ করে, তবে সকলে সর্বতোভাবে তাকে মেনে চলবে; কোনো কুলমর্যাদার প্রশ্ন উত্থাপন করবে না।” নয়নমুগ্ধ পদ্মের জন্ম জলাশয়ের পঙ্কে। সুতরাং বংশ পরিচয়ই মানুষের প্রকৃত পরিচয় নয়, কর্মই মানুষের প্রকৃত পরিচয়।

See also  ভাবসম্প্রসারণ: আমাদের দেশে হবে সেই ছেলে কবে, কথায় না বড় হয়ে কাজে বড় হবে

মন্তব্য : বংশ গৌরব নয়, কর্মগুণেই মানুষ শ্রেষ্ঠত্ব অর্জন করে থাকে। সুতরাং মানুষের সৎকর্মের মর্যাদা দেওয়া প্রয়োজন ৷

আরও পড়ুনঃ

সম্পূর্ণ পোস্টটি মনোযোগ দিয়ে পড়ার জন্য তোমাকে অসংখ্য ধন্যবাদ। আশা করছি আমাদের এই পোস্ট থেকে ভাব সম্প্রসারণ যেটি তুমি চাচ্ছিলে সেটি পেয়ে গিয়েছ। যদি তুমি আমাদেরকে কোন কিছু জানতে চাও বা এই ভাব সম্প্রসারণ নিয়ে যদি তোমার কোনো মতামত থাকে, তাহলে সেটি আমাদের কমেন্টে জানাতে পারো। আজকের পোস্টে এই পর্যন্তই, তুমি আমাদের ওয়েবসাইট ভিজিট করে আমাদের বাকি পোস্ট গুলো দেখতে পারো।

Related posts

ভাবসম্প্রসারণঃ নহে আশরাফ আছে যার শুধু বংশ পরিচয়, সেই আশরাফ জীবন যাহার পুণ্য কর্মময়

Swopnil

সারমর্মঃ আসিতেছে শুভদিন, দিনে দিনে বহু বাড়িয়াছে দেনা

Swopnil

রচনাঃ সময়ের মূল্য

Swopnil

Leave a Comment