অনুচ্ছেদনির্মিতিবাংলা

অনুচ্ছেদঃ বায়ু দূষণ

বায়ু দূষণ

আজকের পোস্টে তোমাকে স্বাগতম। আজকের এই পোস্টে আমরা একটি  অনুচ্ছেদ দেখব – বায়ু দূষণ। এইটি অনেক গুরুত্বপূর্ণ একটি অনুচ্ছেদ। এটি অনেকবার পরীক্ষায় কমন পড়ে।

তুমি যেই শ্রেণিতেই পড়োনা কেন – এইটি যদি তুমি মুখস্ত রাখো তাহলে তোমার পরীক্ষায় কমন পড়ার চান্স অনেক বেশি। আর এইজন্যই আজকে আমরা একটি খুবই সহজ এবং মুখস্ত করার মতো অনুচ্ছেদ নিয়ে এসেছি।

তাহলে চলো, শুরু করা যাক।

বায়ু দূষণ

বায়ু প্রাকৃতিক পরিবেশের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ ও অপরিহার্য সম্পদ। বায়ু ব্যতীত জীবনধারণের কোনো উপায় নেই। কিন্তু প্রাকৃতিক কারণে ও মানবসৃষ্ট কারণে প্রতিনিয়তই বায়ু দূষিত হচ্ছে। প্রাকৃতিকভাবে বায়ু দূষণের অন্যতম কারণ ধূলিঝড়, দাবাগ্নি, আগ্নেয়গিরির অগ্ন্যুৎপাত ইত্যাদি। এসব ঘটনায় ধূলা-বালি, ধোঁয়া ও বিষাক্ত গ্যাস বাতাসে মিশে বায়ুকে দূষিত করে। কলকারখানার ধোঁয়া, যানবাহনের ধোঁয়া, ময়লা-আবর্জনা থেকে নির্গত দুর্গন্ধও বায়ুকে দূষিত করে। যানবাহন এবং কলকারখানার ধোঁয়ায় কার্বন-ডাই- অক্সাইড, কার্বন-মনো-অক্সাইড, সালফার-ডাই-অক্সাইডসহ নানা ধরনের ক্ষতিকারক বায়বীয় পদার্থ থাকে। বায়ুমণ্ডলে কার্বনডাই- অক্সাইড যদি বেড়ে যায় তবে গ্রিনহাউস প্রতিক্রিয়ার ফলে বায়ুমণ্ডলের তাপমাত্রা বৃদ্ধি পায়। কার্বন মনো-অক্সাইড রক্তের সঙ্গে মিশে রক্তের অক্সিজেন পরিবহন ক্ষমতা নষ্ট করে দেয়। সালফার ডাই-অক্সাইড, নাইট্রিক অক্সাইড বৃষ্টির পানির সঙ্গে মিশে ‘এসিড রেইন বা অম্ল বৃষ্টির সৃষ্টি করে যা উদ্ভিদ, প্রাণী, দালানকোঠা প্রভৃতির জন্য মারাত্মক ক্ষতিকারক। ইটভাটার কালো ধোঁয়া পরিবেশের জন্য মারাত্মক হুমকিস্বরূপ। বায়ু দূষণ মাথা ধরা, হাঁপানি, ব্রংকাইটিস, উচ্চ রক্তচাপ এমনকি ক্যান্সারেরও কারণ হয়ে দাঁড়ায়। বায়ু দূষণ বন্ধ করার জন্য উদ্ভিদের সংখ্যা বাড়াতে হবে— এতে অক্সিজেন ও কার্বন-ডাই-অক্সাইডের ভারসাম্য বজায় থাকবে। অন্যদিকে বায়ুতে যাতে দূষিত পদার্থ ও গ্যাস না মেশে তার ব্যবস্থা নিতে হবে। নির্মল বায়ু সেবনের ব্যাপারে পরিবেশকে দূষণ মুক্ত রাখতে সকলকে সচেষ্ট হতে হবে।

সম্পূর্ণ পোস্টটি মনোযোগ দিয়ে পড়ার জন্য তোমাকে অসংখ্য ধন্যবাদ। আশা করছি আমাদের এই পোস্ট থেকে যে আবেদন পত্রটি তুমি চাচ্ছিলে সেটি পেয়ে গিয়েছ। যদি তুমি আমাদেরকে কোন কিছু জানতে চাও বা এই পত্র নিয়ে যদি তোমার কোনো মতামত থাকে, তাহলে সেটি আমাদের কমেন্টে জানাতে পারো। আজকের পোস্টে এই পর্যন্তই, তুমি আমাদের ওয়েবসাইট ভিজিট করে আমাদের বাকি পোস্ট গুলো দেখতে পারো।

Related posts

আবেদন পত্রঃ পাঁচ দিনের ছুটি চেয়ে প্রধান শিক্ষকের নিকট আবেদন পত্র লেখ

Swopnil

আবেদন পত্রঃ শিক্ষাসফরে যাবার অনুমতি প্রার্থনা করে প্রধান শিক্ষক বরাবর আবেদন পত্র লেখ

Swopnil

রচনাঃ সংবাদপত্র পাঠের প্রয়োজনীয়তা

Swopnil

Leave a Comment